Lead Newsআন্তর্জাতিক

ম্যাক্রোঁ ফ্রান্সের জন্য বোঝাঃ এরদোয়ান

ইসলাম ও মহানবী হযরত মোহাম্মদকে (সা.) রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় অবমাননা করার পর ফ্রান্সের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়ে সমগ্র মুসলিম বিশ্ব। এমন বিক্ষোভের মধ্যেও ম্যাক্রোঁ তার ‘ইসলামবিরোধী’ অবস্থানে অনড় থাকেন। এ নিয়ে মুসলিম বিশ্বের অন্যান্য নেতাদের মতো ফরাসি প্রেসিডেন্টের তীব্র সমালোচনা করেছেন এরদোয়ান। গতকাল (৪ ডিসেম্বর) শুক্রবার আবারও ম্যাক্রোঁর বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন তিনি।

ইস্তানবুলের একটি মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করার পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোয়ান। এ সময় তিনি বলেন, ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ ফ্রান্সের জন্য বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছেন। ফরাসিদের উচিত তাকে পরিত্যাগ করা। আমি আশাকরি, দ্রুত সময়ের মধ্যে ম্যাক্রোঁর হাত থেকে ফ্রান্স ও এর নাগরিকরা মুক্তি পাবে।

প্রসঙ্গত, গত ২০ অক্টোবর মহানবী হযরত মুহাম্মদের (সা.) ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনকারী শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটিকে হত্যার পর ফ্রান্স সরকার মুসলমান এবং তাদের সংগঠনগুলোর ব্যাপারে কঠোর অবস্থানের কথা ঘোষণা করে। সেই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেরাল্ড ডারমানিন বলেছেন, ৭৬টি মসজিদকে ‘বিচ্ছিন্নতাবাদের’ উৎপত্তিস্থল হিসেবে সন্দেহ করা হচ্ছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে এগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে।

অক্টোবরেই ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ মুসলমানদের ‘ইসলামপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদ’ বলে অভিহিত করে একটি পরিকল্পনা তৈরি করেছিলেন। একই সঙ্গে তিনি ইসলামকে বিশ্বজুড়ে ‘সঙ্কটের ধর্ম’ হিসেবে বর্ণনা করেছিলেন। তার এমন মন্তব্য ফ্রান্স এবং বিশ্বব্যাপী মুসলমানদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি করে। সেই রেশ কাটতে না কাটতেই এবার মসজিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে বলে জানালো দেশটির সরকার।

এই জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine + 18 =

Back to top button