লাইফস্টাইল

গরমে আনারসের জুস পানে যত উপকার

গরমে আনারসের জুস পান করা শরীরের জন্য খুবই ভালো। জুস গরমে শরীর ও মনকে দেবে প্রশান্তি। সারা দিনের ক্লান্তি দূর করার পাশাপাশি ঠাণ্ডা, কাশি, জ্বর সারাবে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবে।

গরমে কেন খাবেন আনারসের জুস?

আনারস ভিটামিন এ, বি ও সির একটি উৎকৃষ্ট উৎস। এতে রয়েছে ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, পটাশিয়াম, ব্রোমেলেইন, বিটা-ক্যারোটিন, মিনারেল, শর্করা, ফাইবার, আয়রন, প্রোটিন ও সহজপাচ্য ফ্যাট খুবই অল্প পরিমাণে। এ ছাড়া প্রতি কেজি আনারস থেকে প্রায় ৫০০ ক্যালোরি শক্তি পাওয়া যায়।

আনারসে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি বিদ্যমান থাকায় এবং এতে ফ্যাটের পরিমাণ একেবারেই কম হওয়ায় এই ফল ওজন কমাতে সহায়ক। এটি রুচিবর্ধক ফল। তাই মুখে রুচি না পেলে আনারস খান। এতে প্রচুর ক্যালসিয়াম, মিনারেলস, ম্যাংগানিজ ও ভিটামিন থাকে। মুখের ভেতরের জীবাণুর আক্রমণ রোধ করে। সারা দিনের ক্লান্তি দূর করবে। আনারস খেতে পারেন জুস করে কিংবা সালাদে।

আসুন জেনে নিই কীভাবে বানাবেন আনারসের জুস।

উপকরণ

আনারস দুই কাপ, চিনি স্বাদমতো, লবণ সামান্য, সাদা গোলমরিচের গুঁড়া ১/২ চা চামচ, পানি ১/২ কাপ, বরফ ৪/৫ টুকরা ।

প্রস্তুত প্রণালি

প্রথমে ভালো করে আনারসের খোসা ছাড়িয়ে নিন। এর পর আনারসের গায়ে যে চোখের মতো অংশ থাকে, তা ভালো করে তুলে ফেলুন। এর পর ছোট ছোট টুকরো করে কেটে নিন। একটি ব্লেন্ডারে বরফ কুচি ছাড়া বাকি উপকরণগুলো একসঙ্গে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। এর পর একটি গ্লাসে বরফ কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার আনারসের জুস।

যেভাবে তৈরি করবেন আনারসের কার্যকরী জুস:

জুস তৈরি করার জন্য খোসা ছাড়িয়ে আনারসটি ছোট ছোট টুকরা করে কেটে নিন। এরপর একটি পাত্রে কিছু পরিমাণ পানি নিয়ে তার মধ্যে আনারসের টুকরোগুলো দিয়ে সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। সকালে হালকা ব্লেন্ড করে খালি পেটে পান করুন আনারসের জুস। ব্লেন্ড না করে আনারস ভেজানো পানি পানও করতে পারেন।

আরও খবর পেতে দেখুনঃ স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাখোলা জানালা

Bd Health Tips, Bd Health Tips

এই জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 + 16 =

Back to top button