Home / শোবিজ / কর ফাঁকির অভিযোগে এ আর রহমানকে হাইকোর্টের নোটিস

কাজের সুযোগ করে দিচ্ছে না বলিউডের একটি মাফিয়াচক্র। যে কারণে বলিউডে নিয়মিত হতে পারছেন না বলে অভিযোগ করেছিলেন অস্কার জয়ী সঙ্গীতশিল্পী এআর রহমান।

এমন মন্তব্যের পর খবরের শিরোনাম হন তিনি। ফের ভারতীয় গণমাধ্যমের শিরোনামে এলেন এই সঙ্গীতশিল্পী।

৩.৪৭ কোটি রুপি আয়ের কর ফাঁকি দিয়েছেন তিনি এমন অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

ইতিমধ্যে কর ফাঁকির অভিযোগে এআর রহমানকে নোটিস পাঠাল মাদ্রাজ হাইকোর্টের বিচারপতি টি এস শিবাগনানম এবং ভি ভাবনানি সুব্বারোয়ানের ডিভিশন বেঞ্চ।

মাদ্রাজ হাইকোর্টের কাছে ভারতের আয়কর বিভাগের অভিযোগ, ২০১১-১২ অর্থ বছরে ব্রিটেনের একটি টেলিকম কোম্পানির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন এআর রহমান। ওই কোম্পানির রিংটোন বানিয়েছিলেন তিনি। পারিশ্রমিক হিসাবে তিনি পেয়েছিলেন ৩.৪৭ কোটি রুপি। কর ফাঁকি দিতে ওই অর্থ সরাসরি নিজের অ্যাকাউন্টে না নিয়ে নিজের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার অ্যাকাউন্টে নেন এআর রহমান। অথচ এটি ছিল তার ব্যক্তিগত আয়।


আয়কর দফতরের দাবি, ভারতীয় নাগরিক হিসাবে এআর রহমান যে আয় করেছেন, তার কর যোগ্য। ওই ৩. ৪৭ কোটি রুপি আয়ের যে কর হয়, তা কর্তন করে বাকি টাকা স্বেচ্ছাসেবী সংস্থায় দিতে পারেন তিনি। কিন্তু কোনো দাতব্য সংস্থার মাধ্যমে ব্যক্তিগত আয় আদান-প্রদান করা যাবে না।

তথ্যসূত্র: এনডিটিভি

Check Also

বেসবাবা সুমন ও তার ছেলে করোনায় আক্রান্ত

বাংলাদেশের জনপ্রিয় রক ব্যান্ড ‘অর্থহীন’ ব্যান্ডের দলনেতা সাইদুস সালেহীন খালেদ সুমন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × 3 =