ভাইরাল

চার মাসের ছেলেকে রেখে করোনা রোগীর সেবা, প্রশংসিত হচ্ছেন চিকিৎসক

মেডিকেল অফিসার হিসেবে চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালের জেনারেল সার্জারি বিভাগে কর্মরত ডা. মাহমুদা সুলতানা আফরোজা। চার মাস সাতদিন বয়সী একটি ফুটফুটে ছেলে আছে তার। ছেলেকে পর্যাপ্ত সময় দিতে মাতৃকালীন ছুটিতে আছেন এ চিকিৎসক।

কিন্তু নিজের মাতৃত্বকালীন ছুটি প্রত্যাহার করে করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসায় নিজেকে যুক্ত করতে  ডা. মাহমুদা সুলতানা আফরোজা নামের ওই মেডিকেল অফিসারচ মানবিক দায়বোধ থেকে ছুটি প্রত্যাহার করে চিকিৎসাসেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে গত ১১ জুন ওই হাসপাতলের পরিচালক বরাবরে একটি লিখিত আবেদন করেছেন। এই আবেদনের পরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছেন তিনি।

ডা. মাহমুদা সুলতানা আফরোজা বলেন, মহামারির এই সময়ে ঘরে বসে থাকা একজন চিকিৎসকের কাজ নয়। যারা চিকিৎসা নিতে আসেন তারাও কারো মা, কারো সন্তান। এটি সবসময় মাথায় রেখে রোগীর সেবা করি। আমি চাই না বিনা চিকিৎসায় একটি প্রাণ ঝরে পড়ুক, এতে নিজের মধ্যে অপরাধবোধ কাজ করে।

তিনি আরো বলেন, অনেক চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বর্তমানে চিকিৎসকের সংকট রয়েছে। যারা সুস্থ রয়েছেন তারাও যদি গা ছেড়ে দেন, তাহলে রোগীরা যাবে কোথায়? তাই আমি নিজেই মাতৃত্বকালীন ছুটি বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছি। আবেদন মঞ্জুর হলে করোনা ওয়ার্ডে যোগদান করবো।

মা ও শিশু হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা কমিটির ট্রেজারার রেজাউল করিম আজাদ বলেন, ডা. মাহমুদা সুলতানা আফরোজা মাতৃত্বকালীন ছুটি বাতিলের আবেদন করে উদার মনের পরিচয় দিয়েছেন। আমরা তার সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানাই। চিকিৎসক হিসেবে এমন মানবিকতা সবার মাঝে থাকা প্রয়োজন।

২০১৬ সালে এমবিবিএস পাস করে ২০১৮ সালের ২৩ ডিসেম্বর মা ও শিশু হাসপাতালের জেনারেল সার্জারি বিভাগের মেডিকেল অফিসার হিসেবে যোগ দেন ডা. মাহমুদা সুলতানা আফরোজা। জানা গেছে, এ বছরের ৫ ফেব্রুয়ারি পৃথিবীতে আসে তার ছেলে। সেই থেকে ছুটিতে আছেন তিনি।

এই জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

10 − 2 =

Back to top button