ভ্রমন

২৯টি দেশকে ভ্রমণের অনুমতি দিচ্ছে গ্রিস

করোনা ভাইরাস আতঙ্ক থেকে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে শুরু করেছে ইউরোপ। যদিও বিশ্বব্যাপী মহাদেশ হিসেবে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই অঞ্চলটি। তবে অর্থনীতি ঠিক করতে প্রতিটি দেশ তাদের দেশে ভ্রমণের সময়সীমা ঠিক করে দিচ্ছে। এই যেমন প্রাচীন সভ্যতার গ্রিস আগামী ১৫ জুন থেকে নিজ দেশে পর্যটকদের ভ্রমণের অনুমতি দিচ্ছে।

মোট ২৯টি দেশকে এই অনুমতি দিচ্ছে গ্রিস। যাদের মধ্যে জার্মানি, অস্ট্রিয়া, ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড অন্যতম। শুক্রবার এক বিবৃতিতে গ্রিসের পর্যটন মন্ত্রণালয় থেকে এমনটি জানানো হয়।

কিন্তু এই তালিকায় ঠাই পায়নি ইউরোপের সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত চার দেশ যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, ইতালি ও স্পেন। অবশ্য বিবৃতিতে আরও বলা হয়, আগামী ১ জুলাই থেকে আরও দেশ অন্তর্ভুক্ত হবে।

১৫ জুন থেকে শুধুমাত্র রাজধানী এথেন্স ও তেসালোনিকির বিমানবন্দর খুলে দেওয়া হবে। যেখানে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নভুক্ত ১৬টি দেশ প্রবেশের অনুমতি পাচ্ছে। যেখানে আরও রয়েছে চেক প্রজাতন্ত্র, বাল্টিক দেশসমূহ, সাইপ্রাস ও মাল্টা।

অন্যদেশগুলোর মধ্যে এই তালিকায় রয়েছে, চীন, জাপান, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, দক্ষিণ কোরিয়া, ইসরায়েল ও লেবানন। তবে ভ্রমণে আসা কিছু পর্যটকদের কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হতে পারে জানানো হয়।

এদিকে করোনা সংক্রমণের শুরুতেই প্রস্তুতি নেয়ায় গ্রিস তুলনামূলক কম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৯০০। আর মৃত্যু হয়েছে ১৭৫।

এই জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × 3 =

Back to top button