আন্তর্জাতিকতথ্যপ্রযুক্তি

ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সতর্ক করলো টুইটার

বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের একটি টুইটে প্রথমবারের মতো ‘ফ্যাক্ট-চেক লেবেল’ সেঁটে দিয়েছে টুইটার। বুধবার সংবাদ মাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

মঙ্গলবার ২০২০ সালের মার্কিন নির্বাচনের বিষয়ে একটি টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, কোনো উপায় নেই (জিরো!) মেইলে ব্যালট পাঠানো হলে যথেষ্ট জালিয়াতি হতে পারে।

ট্রাম্পের এই বার্তাকে টুইটার তাদের নতুন নিয়মে বিভ্রান্তিকর তথ্য হিসেবে চিহ্নিত করেছে। টুইটের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, কোনো প্রমাণ ছাড়া এই ধরণের তথ্য ছড়ানো বিভ্রান্তিকর। আর এ জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সতর্ক করে দিয়েছে টুইটার।

এদিকে টুইটারের সতর্কবার্তা পাওয়ার পর ফিরতি টুইটে ট্রাম্প বলেন, বাক-স্বাধীনতাকে সম্পূর্ণভাবে দমিয়ে রাখা হচ্ছে।

নির্বাচন নিয়ে ট্রাম্পের এই বার্তাকে টুইটার বিভ্রান্তিকর হিসেবে চিহ্নিত করলেও আরেক জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক এই বিষয়ে কোন অভিযোগ জানায়নি। টুইটার ওই পোস্ট নিয়ে আপত্তি জানানোর পর ট্রাম্প ফেসবুকে ওই বার্তা পোস্ট করেন। যেখানে ওই পোস্টটি প্রায় ১৭ হাজার বার শেয়ার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ফেসবুকের পক্ষ থেকে বলা হয়, আমরা বিশ্বাস করি যে নির্বাচনী প্রক্রিয়া সম্পর্কে মানুষের একটি শক্ত বিতর্ক করার সামর্থ থাকতে হবে।

প্রসঙ্গত, আগামী ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তার আগে টুইটারের এমন পদক্ষেপের তীব্র সমালোচনা করেছেন ট্রাম্প। তিনি টুইটারের বিরুদ্ধে নির্বাচনে হস্তক্ষেপের অভিযোগ তুলেছেন।

সম্প্রতি পিউ রিসার্চ সেন্টারের এক জরিপে উঠে আসে, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের ৬৬ শতাংশ মানুষ আর ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে চান না। এর বদলে তারা ডাকযোগে ভোট দেয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। এ বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন রাজ্য সরকারের পাশাপাশি হোয়াইট হাউসেও বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে টুইটারে ওই মন্তব্য করেছিলেন ট্রাম্প।

এই জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − two =

Back to top button