latest News
Home / শিল্প ও বাণিজ্য / ২৮ মে’র পর ব্যাংকারদের বিশেষ ভাতা নয়

২৮ মে’র পর ব্যাংকারদের বিশেষ ভাতা নয়

করোনাভাইরাসের কারণে অন্যসব খাতের মতো ব্যাংকিং কার্যক্রম স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসায় ২৯ মে থেকে ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রণোদনা ভাতা স্থগিতের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ২৮ মে’র পর থেকে ব্যাংকগুলোকে আর বাড়তি ভাতা দিতে হবে না।

ব্যাংকারদের প্রণোদনার বিষয়ে গত ১২ এপ্রিল জারি করা বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলারে বলা হয়, সাধারণ ছুটি শুরুর পর কেউ ১০ দিন অফিস করলে তাকে বাড়তি এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ টাকা দিতে হবে। ১০ দিনের কম উপস্থিতি হলে সে ক্ষেত্রেও আনুপাতিক হারে তিনি ভাতা পাবেন। চুক্তিভিত্তিক কর্মকর্তা-কর্মচারিদের ক্ষেত্রেও এ নির্দেশনা কার্যকর হবে। কোনো ক্ষেত্রে বিশেষ প্রণোদনা ভাতার পরিমাণ মাসিক সর্বনিন্ম ৩০ হাজার টাকা এবং সর্বোচ্চ এক লাখ টাকার বেশি হবে না।

রোববার এ সংক্রান্ত বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলারে বলা হয়েছে, ২৮ মের পর থেকে স্বশরিরে ব্যাংকে উপস্থিত থেকে কার্যক্রম পরিচালনার জন্য আর বিশেষ প্রণোদনা ভাতা দেওয়া লাগবে না। বিশেষ প্রণোদনা ভাতা সাধারণ ছুটি ঘোষণার তারিখ থেকে ২ মাস কার্যকর থাকবে। ফলে ২৯ মে থেকে আর আগের নির্দেশনার কার্যকরিতা থাকবে না। তবে সাধারণ ছুটির মধ্যে স্বশরিরে উপস্থিত কর্মকর্তা-কর্মচারিদের ব্যাংকের নিজস্ব নীতিমালার আওতায় যাতায়াত ভাতা দিতে হবে।

সার্কুলারে আরও বলা হয়, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে সাধারণ ছুটির মধ্যে ব্যাংকিং খাতকে সচল রাখতে যেসব কর্মকর্তা-কর্মচারী স্বশরীরে ব্যাংকে গিয়ে দায়িত্ব পালন করছেন তাদের বিশেষ প্রণোদনা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। ব্যাংকিং কার্যক্রম গতিশীল করার মাধ্যমে অর্থনীতি পুনরজ্জীবিত করতে অন্যান্য খাতের মতো ব্যাংকিং কার্যক্রম চালু রাখার আবশ্যকতা দেখা যাচ্ছে। সীমিত ব্যাংকিং কার্যক্রম ধীরে ধীরে প্রত্যাহার করে স্বাভাবিক ব্যাংকিং কার্যক্রম শুরু করার বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে। এ অবস্থায় ব্যাংকিং কার্যক্রম স্বাভাবিক ধারায় ফিরেয়ে নেওয়া আবশ্যক হয়ে পড়েছে।

Micro Web Technology

Check Also

বিধিনিষেধের মধ্যেই সিকদার গ্রুপের দুই ভাই ‘দেশ ছেড়েছেন’ এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে!

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে আরোপিত বিধিনিষেধের মধ্যেই গত ২৫ মে সিকদার গ্রুপের মালিকানাধীন একটি এয়ার অ্যাম্বুলেন্স দুই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × four =

বাংলাদেশে

  • মোট আক্রান্ত: ৪৪৬০৮ জন,
  • মোট সুস্থ: ৯৩৭৫ জন,
  • মোট মৃত্যু: ৬১০ জন

বিশ্বে

  • মোট আক্রান্ত: ৫৯২৩৪৩২ জন,
  • মোট মৃত্যু: ৩৬৪৮৪৯ জন