Lead Newsকরোনাভাইরাসপ্রবাস

ঢাকা ছেড়েছেন ৪৪২২, ফিরেছেন ১৭৯৯ জন

করোনাভাইরাসে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিশেষ ব্যবস্থায় এখন পর্যন্ত চার হাজার ৪২২ জন বিদেশি নাগরিক নিজ দেশে ফিরে গেছেন। আর বিভিন্ন দেশ থেকে একই ব্যবস্থায় ঢাকায় ফিরেছেন এক হাজার ৭৯৯ জন বাংলাদেশি নাগরিক।

বিদেশি নাগরিকদের মধ্যে ভুটান, মালয়েশিয়া, জার্মানি, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা, জাপান, রাশিয়া, মালদ্বীপ, সিঙ্গাপুর ও তুরস্কের নাগরিকরা ফিরে গেছেন। অন্যদিকে চীন, ভারত, নেপাল, ওমান, থাইল্যান্ড, সৌদি আরব ও শ্রীলঙ্কা থেকে বাংলাদেশি নাগরিকরা দেশে ফিরেছেন।

বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বার্তায় এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে এক মাসের বেশি সময় ধরে আকাশপথে চীন ছাড়া অন্য দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের যাত্রী পরিবহন ফ্লাইট বন্ধ রয়েছে। এই সময়ে বাংলাদেশ থেকে বিদেশে এবং দেশের বাহিরে থেকে বাংলাদেশে নাগরিকরা বিশেষ ফ্লাইটে দেশে ফিরেছেন। তবে এর আগে গত ১ ফেব্রুয়ারি চীনের উহান শহর থেকে ৩১৬ জন বাংলাদেশিকে দেশে ফেরত আনে সরকার।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বার্তায় জানানো হয়, করোনাভাইরাসের এই কঠিন সময়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশনা অনুযায়ী এসব কাজ পরিচালনা করছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এই করোনাকালে মন্ত্রণালয় বিদেশি নাগরিকদের দেশে ফেরার বিষয়ে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি দেশের বাহিরে যেসব দেশে বাংলাদেশি নাগরিকরা আটকা পড়েছে তাদের দেশে ফেরত আনবে।

বার্তায় আরও জানানো হয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় বিদেশে বাংলাদেশ মিশনসমূহের সহায়তায় প্রবাসী বাংলাদেশিকর্মীদের, বিশেষ করে মধ্যপ্রাচ্যে অবস্থানকারীদের মধ্যে খাদ্য সহায়তাসহ প্রয়োজনীয় সহায়তা করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ মিশনগুলো ‘হটলাইন নম্বর’ প্রতিষ্ঠা করেছে এবং অনেক মিশন প্রবাসী বাংলাদেশিদের অনলাইন চিকিৎসার পরামর্শ দেয়ার জন্য ‘ডাক্তারদের পুল’ গঠন করেছে বলেও বার্তায় উল্লেখ করা হয়।

মুসলিম অভিবাসীদের সুরক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় আর্থিক ও চিকিৎসা সহায়তা প্রদান এবং এই পরিস্থিতেতে তাদের চাকরি রক্ষার জন্যে মানবাধিকার সংগঠনসমূহকে নিয়ে কাজ করার জন্য ওআইসি সচিবালয়কে গতকাল পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আদুল মোমেন অনুরোধ করার বিষয়টিও বার্তায় যোগ করা হয়।

এই জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five + seven =

Back to top button