Breakingকর্পোরেট

লকডাউনে নিত্যপণ্য দ্রুত পৌঁছে দিচ্ছে ‘ধামাকা রকেট সার্ভিস’

করোনাকালে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ধামাকাশপিং ডটকম (dhamakashopping.com) মানুষকে নানাভাবে সেবা দিচ্ছে। আপনার প্রয়োজনীয় পণ্য দ্রুত সময়ে পৌঁছাতে ‘ধামাকা রকেট সার্ভিস’ নামে নতুন সেবা চালু করেছে ধামাকাশপিং ডটকম। গ্রোসারি, ওষুধ, মাছ-মাংস, ফ্রোজেন ফুড ও সবজির মত নানান নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য মিলছে ধামাকা রকেট সার্ভিসে।

লকডাউনে এখন সবাইকে বাসায় থাকতে হচ্ছে। এক এলাকার মানুষ অন্য এলাকায় যেতে পারছেন না। নিরাপত্তার জন্য লকডাউনে কিছু এলাকার বাইরে থেকে ডেলিভারি ম্যানকেও ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। এসব এলাকার মানুষ ধামাকা রকেট সার্ভিস ব্যবহার করে নিকটস্থ শপে অর্ডার করেই দ্রুত পছন্দের পণ্যটি ডেলিভারি নিতে পারছেন।

এক্ষেত্রে তিন কিলোমিটারের মধ্যে গ্রোসারি, ওষুধ, মাছ-মাংস, ফ্রোজেন ফুড ও সবজির মত নানান নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ডেলিভারি দিচ্ছে ধামাকা রকেট সার্ভিসের শপগুলো। আপনি ধামাকা রকেট সার্ভসে অর্ডার প্লেস করার সঙ্গে সঙ্গে নিকটস্থ শপের নিজস্ব ডেলিভারি টিম আপনার প্রয়োজনীয় পণ্য পৌঁছে দেবে।

ধামাকাশপিং ডটকমের প্রধান পরিচালক (সিওও) সিরাজুল ইসলাম রানা বলেন, করোনা মহামারিতে আমাদের জনজীবনের প্রায় প্রতিটি কর্মকাণ্ডই এখন অনলাইন নির্ভর। করোনাকালে অনলাইনে কেনাকাটা অন্য যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি। প্রতিদিনের প্রয়োজনীয় দ্রব্য কেনার ক্ষেত্রে অধিকাংশ মানুষই নিরাপত্তার কথা ভেবে বাজার করছে ই-কমার্স সাইটে।

তিনি আরও বলেন, দেশে করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় আবারও শুরু হয়েছে কঠোর লকডাউন। করোনার কারণে ক্রেতাদের বড় অংশ ঘরে বসেই নিত্যপণ্য কিনতে আগ্রহী। চাল, ডাল ও ওষুধের মতো পণ্যের চাহিদাই এখন বেশি।

আর একারণেই লকডাউনের সময়ে প্রয়োজনীয় পণ্য পৌঁছে দিতে আমরা চালু করেছি ধামাকা রকেট সার্ভিস। এই সার্ভিসে অর্ডার করার পর দেশব্যাপী মাত্র ৩২ ঘণ্টার মধ্যে পৌঁছে যাবে আপনার পছন্দের পণ্য। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সেলাররা সংযুক্ত হচ্ছেন ধামাকা রকেট সার্ভিসে। যারা চেষ্টা করছেন এই লকডাউনের সময়ে আপনার দোরগোড়ায় পণ্য পৌঁছে দিতে।

এই জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

19 + nine =

Back to top button