জাতীয়দেশবাংলা

‘রাষ্ট্রের নিরাপত্তায় হুমকি’ রোহিঙ্গাদের অপতৎপরতা বন্ধ, দ্রুত প্রত্যাবাসনের দাবীতে মানববন্ধন

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সংগ্রাম জাতীয় কমিটি’র উদ্যোগে আজ শনিবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন সংগঠনের সভাপতি মুহাম্মদ আতা উল্লাহ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক মন্ত্রী ও বিএলডিপি’র চেয়ারম্যান এম.নাজিম উদ্দিন আল আজাদ। সমাবেশ উদ্বোধন করেন সংগঠনের সহ-সভাপতি ও পালংখালীর জনতার নেতা এম. গফুর উদ্দিন চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মুঠফোন গ্রাহক এসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ ন্যাপ এর মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, বাংলাদেশ জাতীয় লীগের চেয়ারম্যান ড. শাহরিয়ার ইফতেখার ফুয়াদ। গর্জোর সভাপ্রধান সৈয়দ মনিরুজ্জামান লিটু, সবুজ আন্দোলনের সভাপতি বাপ্পি সরদার, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির যুগ্ম মহাসচিব আব্দুল্লাহ আল হাসান সাকিব, জাতীয় রাজনীতিবিদ আব্দুল জলিল,জাতীয় জাগো নারী ফাউন্ডেশনের সভাপতি রেহানা আক্তা রেনু, সাংগঠনিক সম্পাদক জান্নাতুন নাহার বিথী, অনলাইন জার্নালিস্ট ফোরামের যুগ্ম আহ্বায়ক আনিসুর রহমান নিলয়, বিশ্ব মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের মহাসচিব এম.এইচ আরমান চৌধুরী, নারী নেত্রী ছকিনা বেগম প্রমুখ।

বক্তারা বলেন রাষ্ট্রের নিরাপত্তার হুমকি রোহিঙ্গা সন্ত্রসীদের অপতৎপরতা বন্ধ করতে হবে, এনজিওদের স্বেচ্ছাচারিতা ও প্রত্যাবাসনবিরোধী অপতৎপরতা বন্ধ করতে হবে, সীমান্তবর্তী এলাকায় রোহিঙ্গাদের যাতায়াত বন্ধ করতে হবে, ভোটার তালিকা হতে রোহিঙ্গাদের নাম বাদ দিতে হবে, নিরাপত্তা বাহিনী কর্তৃক রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নিরাপত্তা আরো কঠোর করতে হবে, রোহিঙ্গাদের হাতে লক্ষ লক্ষ অবৈধ মোবাইল ও সিম বন্ধ করতে হবে, এনজিওদের চরম স্বেচ্ছাচারিতা ও প্রত্যাবাসন বিরোধী অপতৎপরতা বন্ধ করতে হবে, সীমান্তবর্তী এলাকায় রোহিঙ্গাদের অবাধে যাতায়াত বন্ধ করতে হবে, ক্যাম্পের বাহিরে অবাধে যত্রতত্র রোহিঙ্গাদের বিচরণ বন্ধ করতে হবে, ভোটার তালিকা হতে রোহিঙ্গাদের নাম বাদ দিতে হবে, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বাংলাদেশ সরকারের কর্মকর্তা-কর্মচারী কর্তৃক পরিচালনা করতে হবে, এনজিও কর্তৃক রোহিঙ্গাদের অবৈধ সহায়তা প্রদান বন্ধ করতে হবে, রোহিঙ্গাদেরকে এনজিওতে চাকুরিতে নিয়োগ দেয়া যাবে না, অবিলম্বে রোহিঙ্গাদের এনজিও চাকুরী হতে বাদ দিতে হবে, স্থানীয়দেরকে চাকুরীতে অগ্রাধিকার দিতে হবে এবং দ্রুত রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন করতে হবে।
সমাবেশ শেষে এই জাতীয় দাবী বাস্তবায়নের লক্ষ্যে রোহিঙ্গা ক্যাম্প অবিমুখে লংমার্চ অনুষ্ঠিত হবে।

এই জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eight − two =

Back to top button