Lead Newsধর্ম ও জীবনসম্মান ও স্বীকৃতি

মাত্র এক রাকাতেই পুরো কোরআন খতম!

হ্যাঁ, মাত্র এক রাকাতেই পুরো কোরআনুল কারীম খতম করেছেন সিরিয়ান বংশোদ্ভূত আবদুর রহমান আল নাবহান। বয়স তাঁর মাত্র ২০ বছর। তাঁর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল রাতের বেলা নামাজের এক রাকাতে পুরো কোরআন খতম করা। অবশেষে সেই স্বপ্নের বাস্তবায়ন করলেন প্রত্যয়ী এই তরুণ। নামাজের এক রাকাতে সাত ঘণ্টায় পবিত্র কোরআন খতম করেছেন তিনি।

পরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইউটিউবে আবদুর রহমান জানান, তিনি মাত্র ৭ ঘণ্টায় নামাজের এক রাকাতে পবিত্র কোরআন খতম করেছেন। কারণ ইসলামের তৃতীয় খলিফা উসমান বিন আফফান (রা.) তাহাজ্জুদ নামাজের এক রাকাতে পুরো কোরআন শেষ করেছেন বলে হাদিসের বর্ণনায় এসেছে। মূলত বিখ্যাত সাহাবি উসমান বিন আফফান (রা.) এর এ ঘটনা তাকে অনুপ্রাণিত করে।

আবদুর রহমান বর্তমানে তুরস্কের কোনিয়া শহরে বসবাস করেন। স্থানীয় সেলজু বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকে মনোবিজ্ঞান বিষয়ে পড়াশোনা করছেন তিনি।

মূলত তিনি সিরিয়ার ঐতিহাসিক হালব শহরের অধিবাসী। রাতের বেলা নামাজে পুরো কোরআন খতম করা তাঁর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল। কেননা ইসলামের তৃতীয় খলিফা উসমান বিন আফফান (রা.) তাহাজ্জুদ নামাজের এক রাকাতে পুরো কোরআন শেষ করেছেন বলে হাদিসের বর্ণনায় এসেছে।

আবদুর রহমান অবশ্য এর আগেও বহুবার এক রাকাতে কোরআন খতম করার চেষ্টা করেছেন, তবে তা করতে সক্ষম হননি। জানা যায়, রাত ১১টায় তিনি নামাজে দাঁড়ান। এরপর দীর্ঘ সাত ঘণ্টা পর সকাল ৬টায় তিনি কোরআন খতম করে নামাজ শেষ করেন।

তিনি এমন সময় নির্বাচন করেন, যে সময়ে ক্লান্তি ও পরিশ্রম কম হবে এবং পুরো কোরআন শেষ করা সম্ভব হবে। তাই শীতের রাতের সময়কে বেছে নেন।

তিনি জানান, এছাড়া নামাজের স্থান হিসেবে মসজিদকে বেছে নেন তিনি। কেননা ঘরে সময় নষ্টের আশঙ্কা থাকে। নামাজ শেষ করে পরিবার, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধুবান্ধবসহ সবার জন্য দোয়া করেন তিনি।

এই জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 + fourteen =

Back to top button