রাজনীতি

ফের একাত্তরের মতো ‘গণজাগরণ’ প্রয়োজন: সিপিবি

লুটপাট, দুর্নীতি ও দুঃশাসনের ‍বিরুদ্ধে একাত্তরের মত আবারো ‘গণজাগরণ’ গড়ে ওঠা প্রয়োজন বলে মনে করে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)।

আজ শুক্রবার পুরানা পল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে এক অনুষ্ঠানে এই মন্তব্য করেন দলটির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম।

দেশের মাত্র ১ শতাংশ লোক ‘আঙুল ফুলে কলা গাছ’ হচ্ছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ৫৪ শতাংশ বাঙালির ন্যায্যহিস্যা আদায়ে একাত্তরে সংগ্রাম করেছি, এবার ৯৯ শতাংশের ন্যায্যহিস্যা আদায়ে একইভাবে সংগ্রাম গড়ে তুলতে হবে।

সিপিবির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের প্রথম সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, এক সময় পূর্ববাংলার সম্পদ পাঞ্জাবসহ পশ্চিম পাকিস্তানে পাচার করা হত। তার বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলে আমরা লড়াই করেছিলাম। সেই আওয়াজ প্রতিষ্ঠা করতে অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করেছি ১৯৭১ সালে।

এখন দেশের সম্পদ পাকিস্তানে নয়, পশ্চিমা দেশগুলো পাচার হওয়ার অভিযোগ করে তিনি বলেন, এটিও বন্ধ করতে একাত্তরের মত বিশাল গণজাগরণের মাধ্যমে আন্দোলন করাই যুক্তিসঙ্গত। ‘কেউ খাবে আর কেউ খাবে না, তা হবে না, তা হবে না’ স্লোগানকে জলাঞ্জলি দিয়ে অল্প কিছু লোক সম্পদের মালিক হয়েছে। তারা দেশবাসীকে অন্ধকারে নিক্ষেপ করেছে।

বড় রাজনৈতিক দলগুলো ‘লুটপাটের ফন্দিফিকিরে ব্যস্ত’ উল্লেখ করে সিপিবি সভাপতি সেলিম বলেন, বিএনপি এটি করেছে, আওয়ামী লীগও সফলভাবে করে চলছে। মানুষকে ভাত থেকেই বঞ্চিত নয়, ভোটাধিকার থেকেও বঞ্চিত করা হয়েছে। অবাধ ভোট হলে তারা ক্ষমতায় থাকতে পারবে না জেনেই নানা কলা-কৌশলে গদি আঁকড়ে থাকার ফন্দি করছে।

কঠোর নিপীড়নমূলক আইন করে দেশে ফ্যাসিস্ট শাসনের দৃষ্টান্ত স্থাপন করা হয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, এর বিরুদ্ধে জনগণকে রুখে দাঁড়াতে হবে। লুটপাট ও দুঃশাসনের অবসান ঘটাতে ৭২-এর সংবিধান কার্যকর করতে হবে। সমাজতন্ত্র, গণতন্ত্র, ধর্মনিপেক্ষতা ও জাতীয় মুক্তির ধারায় ফিরে যেতে হবে।

ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের সম্মেলন করার কথা জানিয়ে সেলিম বলেন, সিপিবির দ্বাদশ কংগ্রেস ১০, ১১, ১২ ও ১৩ ফেব্রুয়ারি হবে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন দলটির সহ-সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ জহির চন্দন, প্রেসিডিয়াম সদস্য শাহিন রহমান, কেন্দ্রীয় সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স প্রমুখ।

এই জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 + four =

Back to top button