আন্তর্জাতিক

জনসম্মুখে মাস্ক না পরে জরিমানা গুনলেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী

মাস্ক না পরায় জরিমানা গুনতে হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী টনি অ্যাবটকে। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারের জনস্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনের দায়ে তাকে ৫০০ অস্ট্রেলীয় ডলার জরিমানা করা হয়েছে।

জানা যায়, সিডনির একটি সমুদ্র সৈকতে গত ৮ সেপ্টেম্বর মাস্ক ছাড়াই বন্ধুর সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ আলাপ করেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী। এক ব্যক্তি তার ওই মুহূর্তের ছবি তুলে তা পুলিশের কাছে পাঠিয়ে অভিযোগ করেন। পরে নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্য পুলিশ অভিযোগের সত্যতা খুঁজে পায় এবং টনি অ্যাবটকে জরিমানা করা হয়।

অবশ্য অস্ট্রেলিয়ার সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী ঘটনার বিষয়ে বলেন, “তিনি স্বাস্থ্যবিধি মেনে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখেই আলাপ করেছিলেন। তবে এই জরিমানার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে তিনি পুলিশের সময় নষ্ট করতে চান না বলেও উল্লেখ করেন।”

এক প্রত্যক্ষদর্শীও দেশটির সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন যে, “টনি অ্যাবট মাস্ক না পরেই সমুদ্র সৈকতে তার এক বন্ধুর সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ আলোচনা করেছেন।” সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার এই রাজ্যটিতে করোনার সংক্রমণ খানিকটা বেড়ে গেছে ভারতীয় তথা ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের কারণে। এ অবস্থায় সংক্রমণ ঠেকাতে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ায় এ পর্যন্ত ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ১ হাজার ছাড়িয়েছে। এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৭৫ হাজারের বেশি মানুষ।

এ বিষয়ে নিউ সাউথ ওয়েলেসের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ব্যার্ড হ্যাজার্ড বলেন, সবারই উচিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা। সবাই যথাযথভাবে সরকারি আদেশ মেনে চলবে বলে আমি আশা করি।

সূত্রঃ দ্য সিডনি মর্নিং হেরাল্ড

এই জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three + 18 =

Back to top button