Lead Newsজাতীয়শিক্ষাঙ্গন

এবার হচ্ছে না বই উৎসব, মার্চ পর্যন্ত আংশিক ক্লাস

আসছে জানুয়ারি মাস থেকেই নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু হচ্ছে। তবে করোনার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের ঝুঁকির কারণে আগের মতোই আংশিকভাবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান করা হবে। আগামী মার্চ মাস পর্যন্ত এটি বহাল থাকবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এছাড়া নতুন বছরে বই উৎসব হবে না বলেও জানিয়েছেন তিনি।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর মাতুয়াইল মৌসুমী প্রিন্টিং প্রেস পরিদর্শনের পর সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন দীপু মনি। এ সময় মাতুয়াইলের কয়েকটি প্রেস পরিদর্শন করেন শিক্ষামন্ত্রী। পরিদর্শনকালে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের কর্মকর্তাসহ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তারা তার সঙ্গে ছিলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আগামী মার্চ মাস পর্যন্ত করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন পরিস্থিতি মনিটরিং করা হবে। পরিস্থিতি যদি নিয়ন্ত্রণে থাকে তাহলে মার্চ মাসের পর শ্রেণিকক্ষে স্বাভাবিক পাঠদান শুরু করা হবে। তার আগ পর্যন্ত বর্তমান নিয়মে অর্থাৎ ধাপে ধাপে শিক্ষার্থীদের ক্লাস চলবে।

তিনি বলেন, পাইলটিং কার্যক্রম হিসেবে নতুন বছরে প্রথম থেকে ষষ্ঠ শ্রেণিতে নতুন কারিকুলাম শুরু করা হবে। এ লক্ষ্যে সারাদেশের ১০০টি স্কুলে এই কার্যক্রম শুরুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল, কিন্তু সেটি কমিয়ে ৬০টি স্কুল নির্বাচন করা হয়েছে। এসব স্কুলে নতুন কারিকুলাম অনুযায়ী পাঠদান করা হবে।

দীপু মনি বলেন, যতক্ষণ না সব শিক্ষার্থী ভর্তি হচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত নতুন কারিকুলাম পড়ানো সম্ভব হবে না। এ কারণে তাদের শিক্ষাবর্ষ শুরু করা হবে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে। বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক এবং ভৌগোলিক সব বিষয় নতুন কারিকুলামে যুক্ত করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে, চলমান করোনাভাইরাসের মহামারির কারণে আগের বছরের মতো এবারো বই উৎসব হবে না জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তবে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই পৌঁছে দেওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি।

দীপু মনি বলেন, স্কুল থেকে ভাগে ভাগে বই বিতরণ করা হবে। ৯৫ ভাগ বই আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে স্কুলগুলোতে পৌঁছে যাবে। জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে অবশিষ্ট বই পৌঁছে যাবে। সুতরাং সময়ের মধ্যে কোনো শিক্ষার্থী বই পাবে না, বিষয়টি এমন নয়।

এই জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × 2 =

Back to top button